পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন

রোজিনার ঘটনায় জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে দেশের বদনাম হচ্ছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

গণমাধ্যম টপ স্টোরি লিড স্টোরি

নিজস্ব প্রতিবেদক

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ.কে. আব্দুল মোমেন বলেছেন, প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের সাথে যা হয়েছে তা দুঃখজনক ও অনভিপ্রেত। গুটি কয়েক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশের বদনাম হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২০ মে) দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন এ মন্তব্য করেন।

আন্তর্জাতিক অঙ্গনে রোজিনাকে নিয়ে যে আলোচনা হচ্ছে সেই প্রশ্নের উত্তর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে দিতে হচ্ছে বলেও জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এদিন সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নিয়ে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানান, সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম যেন ন্যায়বিচার পায় সে চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। আর এ বিষয়টি সহানুভূতির সঙ্গে দেখা হবে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম যাতে ন্যায়বিচার পান সেটি নিশ্চিত করতে প্রচেষ্টা চালানো হবে। একটি নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে। তবে, রোজিনা ইসলামেরও ভুল হতে পারে। বিষয়টি আবেগের সঙ্গে না দেখে বাস্তবতা প্রেক্ষিতে দেখতে হবে। কেউই ভুলের ঊর্ধ্বে নয়।

এদিকে সকালে গণমাধ্যমকে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) রমনা বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার এইচ এম আজিমুল হক বলেন, সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের মামলার তদন্তের স্বার্থে যা যা করা দরকার, তার সবই করা হবে।

মামলা তদন্ত করতে কোনো চাপ আছে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মামলা তদন্ত করতে কোনো জায়গা থেকে কোনো চাপ নেই।

এদিকে প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের জামিন শুনানি শুরু হয়েছে। তবে আদালতে হাজির না করে শুনানি কার্যক্রম ভার্চুয়ালি হচ্ছে।