যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি

যুক্তরাষ্ট্রকে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি

টপ স্টোরি সারাবিশ্ব স্লাইডার

সারাবিশ্ব ডেস্ক »

রাশিয়ার জলসীমা লঙ্ঘন করার অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে মস্কো। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা স্পুতনিক জানিয়েছে, কুরিল দ্বীপপুঞ্জের কাছে রাশিয়ার একটি নৌবহরের মহড়া চলাকালে ওই এলাকায় যুক্তরাষ্ট্রের একটি সাবমেরিন শনাক্ত করা হয়।

সতর্কসংকেত দেওয়ার পরেও সাবমেরিনটি সেখানেই ছিল। পরে জলসীমা সুরক্ষাসংক্রান্ত নীতিমালা মেনে সাবমেরিনটি সেখান থেকে সরিয়ে নিতে বাধ্য করা হয়।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, মার্কিন সাবমেরিনের উসকানিমূলক আচরণ রাশিয়ার নিরাপত্তার জন্য হুমকি সৃষ্টি করেছিল। এ অবস্থায় রাশিয়া তার জলসীমার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় যেকোনো ব্যবস্থা নেওয়ার অধিকার রাখে।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় যুক্তরাষ্ট্রকে হুশিয়ারি দিয়ে বলেছে, ভবিষ্যতে যেন এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে। তবে রাশিয়ার জলসীমা লঙ্ঘন করে মার্কিন সাবমেরিনের উপস্থিতির অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে উল্লেখ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

রাশিয়া বলছে, ওই সাবমেরিনকে রুশ ও ইংরেজি দুই ভাষাতেই সতর্কসংকেত দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তারপরেও এটি সেখানেই ছিল। পরে জলসীমা সুরক্ষা নীতির আওতায় ব্যবস্থা নেওয়ার পর সাবমেরিনটি ওই এলাকা ছেড়ে চলে যায়।

সাম্প্রতিক সময়ে ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়া প্রায় এক লাখ সেনা মোতায়েন করেছে। এরপর থেকেই পশ্চিমা দেশগুলো বার বার সতর্ক করেছে যে, রাশিয়া হয়তো ইউক্রেনে হামলা চালাতে পারে। তবে কোনো ধরনের আক্রমণ চালানোর পরিকল্পনার কথা অস্বীকার করেছে মস্কো।

ইউক্রেন ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র এবং রাশিয়ার মধ্যে তুমুল উত্তেজনা বিরাজ করছে। ইতোমধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র তাদের নাগরিকদের ইউক্রেন ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছে। এর মধ্যেই রাশিয়ার জলসীমায় মার্কিন সাবমেরিনের উপস্থিতি নিয়ে নতুন করে অস্থিরতা দেখা দিলো।