শেন ওয়ার্ন

মৃত্যুর আগে কাপড় হাতে কোথায় গিয়েছিলেন শেন ওয়ার্ন?

খেলাধুলা টপ স্টোরি লিড স্টোরি

ক্রীড়া ডেস্ক »

অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি লেগ স্পিনার শেন ওয়ার্ন গত শুক্রবার থাইল্যান্ডের কোহ সামুইতে নিজের ভিলায় মারা যান। তার মৃত্যুর খবরে হতবাক পুরো ক্রিকেট বিশ্ব। হঠাৎ করে তার চলে যাওয়া মেনে নিতে পারছেন না অনেকে ক্রিকেটপ্রেমী।

তবে তার মারা যাওয়ার পর থেকেই মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়। যদিও থাইল্যান্ড পুলিশের দাবি, ওয়ার্নের মৃত্যু স্বাভাবিক এবং কোনো ধরনের সন্দেহজনক কিছু পাওয়া যায়নি। তারপরও ওয়ার্নের মৃত্যু নিয়ে নানা তথ্য উঠে আসতে শুরু করে গণমাধ্যমে।

তার মৃত্যুর দিন থাইল্যান্ডে বিলাসবহুল যে রিসোর্টে শেন ওয়ার্ন অবস্থান করছিলেন, সেখানে থেকে ৪ নারীর বেরিয়ে যাওয়ার একটি সিসিটিভির ফুটেজ সামনে এসেছে। ওয়ার্নের বন্ধুরা জানান, ম্যাসাজ করার জন্য ওই নারীদের বুক করেছিলেন ওয়ার্ন।
এদিকে, ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মর্মান্তিকভাবে মারা যাওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে শেন ওয়ার্নকে বিলাসবহুল হোটেলের ভেতরে দিয়ে কাপড় হাতে হেঁটে যেতে দেখা গেছে।

সিসিটিভি ফুটেজটি বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, মৃত্যুর কিছুক্ষণ আগে শেন ওয়ার্ন তার দর্জি পরশুরাম পান্ডের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন। আর সেখানে যাওয়ার সময়ই ক্যামেরায় ধরা পড়েন তিনি।

পরশুরাম পান্ডে বলেন, আমি কোনোভাবেই তার মৃত্যু মেনে নিতে পারছিলাম না। যে মানুষটা কয়েক ঘণ্টা আগেই আমার সঙ্গে দেখা করে গেলেন তিনি আর নেই! যখন তিনি আমার কাছে এসেছিলেন তখন তাকে অনেক উচ্ছ্বসিত ও উজ্জীবিত দেখাচ্ছিল।

দর্জির কাছ থেকে ঘরে ফেরার পর ম্যাসাজ পার্লারের দুই নারী দুপুর ২টার দিকে শেন ওয়ার্নের ঘরে প্রবেশ করেন। ডেইলি মেইলের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২টা ৫৮ মিনিটে তারা ওয়ার্নের ঘর ছেড়ে যান। ধারণা করা হচ্ছে, ওয়ার্নকে সর্বশেষ জীবিত দেখেছিলেন ওই দুই নারী।

শেন ওয়ার্নের মৃত্যুর বিষয়ে থাইল্যান্ড পুলিশের দেওয়া বিবৃতি অনুযায়ী, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শেন ওয়ার্নের মৃত্যু হয় বিকেল ৫টা ১৫ মিনিটে। পুলিশের মতে, ঘরে এমন কিছু পাওয়া যায়নি, যা থেকে বোঝা যায় শেন ওয়ার্নের মৃত্যু একটি ষড়যন্ত্র।

শেন ওয়ার্নের পোস্টমর্টেম রিপোর্টও ইঙ্গিত করে যে কিংবদন্তি স্পিনার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। একই সময়ে, থাইল্যান্ড পুলিশের প্রধান সিসিটিভি ফুটেজের পরে বলেছেন, শেন ওয়ার্ন নারীদের ম্যাসেজ করার জন্য ডেকেছিলেন, তবে তার মৃত্যুর সঙ্গে এর কোনো সম্পর্ক নেই। পুলিশ এর আগে একটি বিবৃতিতে বলেছিল যে শেন ওয়ার্নের ঘর থেকে রক্তের দাগও পাওয়া গেছে, যা সিপিআর দেওয়ার জন্য হয়েছিল।